বাংলাদেশে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারীর অফিস (ইউএনআরসি)

জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী  ব্যবস্থা (আরসি  সিস্টেম) বাংলাদেশে টেকসই উন্নয়নের জন্য জাতিসংঘের সব সংস্থাকে একসঙ্গে কর্মকাণ্ড পরিচালনার ব্যবস্থা করে দেয়। এর লক্ষ্য হলো জাতিসংঘ সিস্টেমের দক্ষতা ও কার্যকারিতা বৃদ্ধি এবং এই সিস্টেমের সমন্বয় ও সুসঙ্গতি নিশ্চিতে সহযোগিতা করা। একটি দেশের উন্নয়ন অর্জনের পথে জাতিসংঘের অবদানের প্রভাব ও প্রাসঙ্গিকতাকে আরও জোরদার করার অভিন্ন লক্ষ্যে একসঙ্গে কাজ করা জাতিসংঘ উন্নয়ন সংস্থাগুলোয় নেতৃত্ব জোরদার, নীতি প্রণয়ন, কর্মসূচি প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন এবং বাস্তব অভিজ্ঞতার নিরিখে কাজ করে আবাসিক সমন্বয়কারী ।

জাতিসংঘ বাংলাদেশসামগ্রিকভাবে জাতিসংঘ টেকসই উন্নয়ন সহযোগিতা কাঠামোর (ইউএনএসডিসিএফ)২০২২-২০২৬ -এর মাধ্যমে কাজ করে। এজেন্ডা ২০৩০, টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট, বাংলাদেশ সরকারের অষ্টম  পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা ও ভিশন-২০২১-এ নির্ধারিত অগ্রাধিকার এবং আন্তর্জাতিক মানবাধিকার মানদণ্ডের অধীনে বাংলাদেশের বাধ্যবাধকতার সঙ্গে সঙ্গতি রেখে প্রণীত হয়েছে ইউএনএসডিসিএফ ।  এটি একটি সংক্ষেপিত পরিকাঠামো, যা জাতিসংঘ ব্যবস্থায় কৌশলগত পরিকল্পনা দেয়, টেকসই উন্নয়নের জন্য সমাজে সর্বস্তরের মানুষের অংশগ্রহণ ও সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখে এবং বাংলাদেশের সার্বিক টেকসই উন্নয়নে জাতিসংঘ ব্যবস্থার ভূমিকা ও অবদান নির্ধারণ করে।

জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারীর কার্যালয়ের মূল কার্যক্রম:

  •         কৌশলগত বিশ্লেষণ, নীতি ও কর্মসূচি পরিকল্পনা;
  •         ইউএনএসডিসিএফ-এর  বাস্তবায়ন পর্যবেক্ষণ;
  •         জাতীয় ও জাতিসংঘের কার্যক্রম সমন্বয় ও কার্যকারিতা বৃদ্ধিতে সহায়তা;
  •         বাহ্যিক যোগাযোগ এবং মানবাধিকার, জেন্ডারসমতার মতো বিষয়গুলোয় জাতিসংঘের সংস্থাগুলোর প্রচারণা;
  •         জাতিসংঘ উন্নয়ন সিস্টেমের প্রতিনিধিত্ব করা এবং জাতিসংঘ সংস্থাগুলোকে সহযোগিতা;
  •         সমন্বিত সহায়তা সেবার উদ্যোগ ও ব্যবস্থা করা; এবং
  •         যৌথভাবে উপকরণ সরবরাহ ও তহবিল ব্যবস্থাপনা।

 

বাংলাদেশে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী

 

গোয়েন লুইস বাংলাদেশে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী।

গোয়েন লুইসের রয়েছে আন্তর্জাতিক উন্নয়ন, শান্তিপ্রতিষ্ঠা ও মানবিক সহায়তার ক্ষেত্রে কাজের ২০ বছরের বেশি অভিজ্ঞতা।

বাংলাদেশে নিয়োগ পাওয়ার আগ পর্যন্ত ২০১৯ সাল থেকে  গোয়েন লুইস পশ্চিম তীরে ইউনাইটেড নেশনস রিলিফ অ্যান্ড ওয়ার্কস এজেন্সি (ইউএনআরডব্লিইউএ) অ্যাফেয়ার্সের পরিচালক পদে কাজ করেছেন। পূর্ব জেরুজালেমসহ পশ্চিম তীরে কাজের সময় তিনি ৮ লাখ ৫০ হাজারেরও বেশি ফিলিস্তিনি শরণার্থীকে জরুরি সেবা ও মানবিক ত্রাণ সহায়তা দিতে নিয়োজিত ৪ হাজার শক্তিশালী দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন।

জেরুজালেমে দায়িত্ব পাওয়ার আগে গোয়েন লুইস লেবাননে ইউএনআরডব্লিইউএ-এর প্রোগ্রামস এ ডেপুটি ডিরেক্টর পদে কাজ করেছেন। ইউএনআরডব্লিউএ-তে কাজ শুরুর আগে তিনি জাতিসংঘ শিশু তহবিলে (ইউনিসেফ) কাজ করেছেন। সেখানে তিনি ইউনিসেফের ইমার্জেন্সি ডিভিশনে গ্লোবাল ক্লাস্টার্স কোঅর্ডিনেশন সেকশন ব্যবস্থাপনা করেছেন। গোয়েন লুইস ২০১২ সালে জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা (এফএও) থেকে ইউনিসেফ এ যোগ দেন। এফএওতেও তিনি কান্ট্রি অফিসগুলোয় মানবিক সহায়তা নীতি ও সহায়তা বিষয়ে কাজ করেছেন। গোয়েন লুইস জেনেভায় অফিস ফর দ্য কোঅর্ডিনেশন অব হিউম্যানিটেরিয়ান অ্যাফেয়ার্সেও (ওসিএইচএ) কাজ করেছেন। সেখানে তিনি জাতিসংঘ ও এনজিও অংশীদারীত্ব গঠনে কাজ করেছেন এবং মানবিক সহায়তা সংস্কার এজেন্ডা বাস্তবায়নে সহায়তা দিয়েছেন। তিনি দখলকৃত ফিলিস্তিন অঞ্চলে ওসিএইচএ এবং ইন্টারন্যাশনাল কমিটি অব দ্য রেডক্রস এ (আইসিআরসি), কসভোয় জাতিসংঘ মিশনে এবং তাজিকিস্তান, আফগানিস্তান ও আলবেনিয়ায় বিভিন্ন এনজিওতে কাজ করেছেন।

ইংরেজি ও ফরাসি ভাষায় পারদর্শী গোয়েন লুইস কেন্টারবারিতে ইউনিভার্সিটি অব কেন্ট থেকে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ও ইউরোপিয়ান স্টাডিজ বিষয়ে কৃতিত্বের সঙ্গে মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেছেন। তিনি স্যান ফ্রান্সিসকো স্টেট ইউনিভার্সিটি থেকে অর্থনীতিতে স্নাতক সম্পন্ন করেছেন।

বাংলাদেশে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারীর অফিস (ইউএনআরসি)

গোয়েন লুইস বাংলাদেশে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী

গোয়েন লুইস

আবাসিক সমন্বয়কারী